মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, উপজেলা কার্যালয়

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ ও রুপকল্প-২০২১এর মূল উদ্দেশ্য ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে গড়ে তোলা। সে লক্ষ্যে সকল জেলা,উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার ও প্রয়োগ নিশ্চিতকরণ, সমন্বয় সাধন ও টেকসই উন্নয়নের জন্য গত ৩১জুলাই, ২০১৩সালে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর গঠন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ১৪ জুলাই ২০১৫ তারিখ হতে একজন সহকারী প্রোগ্রামের নেতৃত্বে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, করিমগঞ্জ উপজেলা কার্যালয়ের কার্যক্রম শুরু করে।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

১) দেশের সর্বনিম্ন স্তর পর্যন্ত উচ্চ গতির ইলেক্ট্রনিক্স সংযোগ ব্যবস্থা সৃষ্টি করা।

২) সারা দেশে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে যথাযথ অবকাঠামো সৃষ্টি করা।

৩) সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট কর্মকান্ডের সমন্বয়সাধন।

৪) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট অবকাঠামো হতে নিরবিচ্ছিন্ন সেবা প্রদানের উদ্দেশ্য কার্যকর রক্ষণাবেক্ষন।

৫) সরকারি পর্যায়ে দক্ষ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রোফেশনাল সৃষ্টির লক্ষ্যে আইসিটি সার্ভিস সৃষ্টি।

৬) দ্রুত পরিবর্তনশীল প্রযুক্তির জন্য প্রশিক্ষিত জনবলের সক্ষমতা বৃদ্ধি।

৭) সরকার ও জনগনের সকল স্তরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি জ্ঞান সম্প্রসারণ।

৮) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট আইন, নীতিমালা, গাইডলাইন ও প্রমিতকরণ প্রস্তুতকরণ।

৯) আইসিটি সেবা ও পণ্যের ব্যবহারিক ক্ষেত্রে ইন্টার-অপারেবিলিটি সৃষ্টি ও রক্ষণাবেক্ষন।

১০)গবেষণা, নিত্য-নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং প্রয়োগে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান।

১) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের উপজেলা কার্যালয়ের সকল কার্যক্রম পরিচালনা

২) আইসিটি সংক্রান্ত কার্যক্রম উন্নয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ

৩) কম্পিউটার নেটওয়ার্ক, হার্ডওয়্যার ও সফট্ওয়্যারের স্ট্যান্ডার্ড স্পেসিফিকেশন প্রণয়নের কাজে সহায়তা প্রদান

৪) সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের দরপত্র কমিটিতে কম্পিউটার যন্ত্রপাতি ক্রয়ে প্রতিনিধিত্বকরণ

৫) অটোমেশনের সফট্ওয়্যার উন্নয়ন, প্রোগ্রামিং ও বাস্তবায়ন

৬) পেপারলেস অফিস চালুকরণ ও রক্ষণাবেক্ষণ

৭) সাইবার ক্রাইম ডিটেকশনে ও প্রটেকশনে সহায়তা প্রদান

৮) কম্পিউটার সিকিউরিটি ও ভাইরাস সচেতনতা সৃষ্টি

৯)সরকারি অফিসে ইন্টারনেট/ওয়েব সার্ভিস চালুকরণে পরামর্শ দান ও সেবা প্রদান

১০) সকল কার্যক্রম কম্পিউটারাইজেশনের লক্ষ্যে কাস্টমাইজড সফট্ওয়্যার উন্নয়নে ব্যবস্থা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন

১১) দেশে ডিজিটাল স্বাক্ষর চালুকরণে সহায়তাকরণ

১২) মাঠ পর্যায়ের সকল ওয়েব সাইট, ওয়েব পোর্টাল ও নেটওয়ার্ক সংরক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণে সহায়তাকরণ

১৩) জেলা/ উপজেলা/ ইউনিয়ন পর্যায়ে ইতোমধ্যে স্থাপিত ই-তথ্য কেন্দ্রসমূহে যথাযথ তথ্য সরবরাহ, সংরক্ষণ, হালনাগাদকরণ, ওয়েব পোর্টাল চালু করতে সহায়তাকরণ।

১৪) মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তথ্য প্রযুক্তি সম্প্রসারণে সহায়তাকরণ

১৫) আইসিটি শিক্ষা ও ডিজিটাল বাংলাদেশ উদ্ধুদ্ধকরণে সহায়তাকরণ

              ভিশন: জনগণের দোরগোড়ায় ই-সার্ভিস সেবার মাধ্যমে জ্ঞান-ভিত্তিক অর্থনীতি, সু-শাসন ও টেকসই উন্নতি নিশ্চিতকরণ।

সরকারের উদ্দেশ্য দেশের সকল মন্ত্রণালয়, বিভাগ এবং সরকারী সংস্থাসমূহ নিজস্ব অভ্যন্তরীণ নেটওয়ার্কের আওতায় আনয়ন(Intranet) ও হাস্পিড ইন্টারন্টে সু্বিধা প্রদান এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ই-সেন্টার স্থাপনে সহায়তা প্রদান ও তথ্য প্রবাহ নিশ্চিতকরণ, জেলা ও উপজেলা  পর্যায়ে ই-সার্ভিস প্রবর্তন, উপজেলা পর্যায়ে WiFiHOT-SPOT স্থাপন, অপটিক্যাল ফাইবার এর মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের উপযুক্ত স্থায়ী অবকাঠামোগত উন্নয়ন, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জনশক্তিকে জনসম্পদে পরিণত করা।

জাতীয় পর্যায়ে ও স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বিভাগ, জেলা উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্মেলন, সেমিনার, কর্মশালা ও ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরে মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে। ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ আইসিট পণ্য ও সেবা বিক্রয় এবং বাজারজাত করণের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এ অধিদপ্তরের মাধ্যমে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক গৃহীত National ICT Policy-2015 মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা হবে।একই সঙ্গে দেশে আইটি প্রশিক্ষিত জনসম্পদ সৃস্টির মাধ্যমে কাঙ্খিত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করা সম্ভব হবে।

অধিদপ্তরের আওতাধীন প্রকল্পের মাধ্যমে সকল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অত্যাধুনিক কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হবে।আউটসোর্সিং এর জন্য আইসিটিতে দক্ষ জনবল গড়ে তোলা  এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিকল্পে ৬৪জেলায় ২০০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক কম্পিউটার প্রশিক্ষণ ও ল্যাঙ্গুয়েজ(ইংরেজী, আরবী, কোরিয়ান, ফ্রেঞ্চ, রাশিয়ান, জাপানিজ, স্প্যানিশ ইত্যাদি ভাষা শিক্ষা প্রদান) ল্যাব স্থাপিত হবে।

ইনফো সরকার-৩ প্রকল্পের আওতায় ৩৫০০ ইউনিয়নে অপ্টিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি প্রদান,ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার(UDC)-এ ওয়াই-ফাইজোনস্থাপনও এইপ্রতিষ্ঠানকেমিনি BPO(Business Process Outsourcing) সেন্টার পরিণত করা, সারা দেশে এক লক্ষ বিনামূল্যে Wi-Fi Hot-Spot স্থাপন এবং ৮০০ স্কুলে ভিডিও কনফারেন্সিং স্থাপন করা হবে।

ছবি নাম মোবাইল

ছবি নাম মোবাইল

ছবি নাম মোবাইল

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের আওতাধীন প্রকল্পের মাধ্যমে সকল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অত্যাধুনিক কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হবে।আউটসোর্সিং এর জন্য আইসিটিতে দক্ষ জনবল গড়ে তোলা  এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিকল্পে ৬৪জেলায় ২০০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক কম্পিউটার প্রশিক্ষণ ও ল্যাঙ্গুয়েজ(ইংরেজী, আরবী, কোরিয়ান, ফ্রেঞ্চ, রাশিয়ান, জাপানিজ, স্প্যানিশ ইত্যাদি ভাষা শিক্ষা প্রদান) ল্যাব স্থাপিত হবে।

এরই ধারাবাহিকতায় "সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ভাষা শিক্ষা ল্যাব স্থাপন" শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় করিমগঞ্জ উপজেলায় মোট  ৬টি  নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম চলমান:

০১। ঝাউতলা আনোয়ারীয়া আলীম মাদ্রাসা

০২। গুজাদিয়া আঃ হেমিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়

০৩। উরদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়

০৪। চাতল এস.সি. উচ্চ বিদ্যালয়

০৫। জঙ্গলবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়

০৬। কান্দইল উচ্চ বিদ্যালয়

 তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, উপজেলা কার্যালয়, করিমগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ। কিশোরগঞ্জ জেলা হতে বাস ও সিনজি যোগে করিমগঞ্জ উপজেলায় আসা যায়। উপজেলা পরিষদের নিচ তালায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের উপজেলা কার্যালয় অবস্থিত। মোবাইলঃ ০১৭৫০-১৩৫৮৯২