মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

আপনার জিঙ্গাসা

পথ চলতে গিয়ে বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হয়ে থানায় জিডি বা সাধারণ ডায়েরি করার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু এ সম্পর্কে অনেকেরই পরিষ্কার ধারণা না থাকায় নানা ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

যেসব কারণে জিডি করবেন

চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই বা হুমকির শিকার কিংবা যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার জন্য পুলিশের সহায়তা চেয়ে থানায় জিডি করা যেতে পারে। কেউ হারিয়ে অথবা পালিয়ে গেলেও থানায় জিডি করা দরকার। এছাড়াও অনেক সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র (শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্টসহ অন্যান্য দরকারী নথি) হারিয়ে গেলে তা নতুন করে পেতেও থানায় জিডি করার প্রয়োজন পড়ে।

কোথায় কীভাবে করবেন

কোনো ব্যক্তি বা জিনিস হারিয়ে গেলে তা যে স্থানে হারিয়েছে সেই থানাতে জিডি করতে হবে। একইভাবে অপ্রীতিকর ঘটনার ক্ষেত্রেও যে স্থানে ঘটেছে তার নিকটস্থ থানাতে জিডি করতে হবে। তবে অন্যান্য ক্ষেত্রে নিজ থানাতে জিডি করা ভালো। জিডি করতে হলে প্রথমে একটি সাদা কাগজে দরখাস্ত লিখতে হবে। এ দরখাস্তের ধরন অন্যান্য দরখাস্তের মতোই। 'বরাবর'-এর নিচে লিখতে হবে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ওই থানার নাম। এরপর বিষয় অংশে আপনি যেজন্য জিডি করছেন সংক্ষেপে তা লিখতে হবে। দরখাস্তের মূল বা ভেতরের অংশে কী কারণে জিডি করবেন তা বিস্তারিত বর্ণনা করতে হবে। এক্ষেত্রে ঘটনার তারিখ, সময় ও স্থান উল্লেখ করা খুবই জরুরি। দরখাস্ত লেখা শেষে নিচে আবেদনকারীর নাম, পিতার নাম, বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা প্রয়োজনে ফোন নম্বর উল্লেখ করতে হবে। এরপর তা ফটোকপি করে মূলকপিসহ থানায় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তার নিকট জমা দিতে হবে। পুলিশ কর্মকর্তা থানায় নির্দিষ্ট নথিতে জিডিটি তালিকাভুক্ত করে জিডির কপিতে সিল, স্বাক্ষর, তারিখ ও জিডি নম্বরসহ এক কপি আবেদনকারীকে দেবেন। পুরো প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত জিডি গণ্য হবে না।

অনলাইনে আবেদনের সুযোগ

প্রযুক্তির এ যুগে ঘরে বসেই সব সুবিধা পেতে চান অনেকেই। তাদের জন্য রয়েছে অনলাইনে জিডি করার সুযোগ। সাধারণ মানুষের ঝামেলা থেকে রেহায় দিতে ও সময় বাঁচানোর জন্য এ পদ্ধতি চালু করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ। এক্ষেত্রে মহানগর পুলিশের ওয়েব সাইট www.dmp.gov.bd তে গিয়ে জিডির আবেদন করা যাবে। প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে শুধু জিডির নম্বর উল্লেখ করলেই হবে। এরপরও যদি কেউ চান তাহলে সংশ্লিষ্ট থানায় গিয়ে জিডি নম্বরসহ প্রিন্টেড কপি সংগ্রহ করতে পারবেন।

জিডি নিয়ে ভুল ধারণা

অনেকেই জিডি আর মামলা এক মনে করেন। আসলে এ ধারণা ভুল। আবার অনেকের ধারণা জিডি করতে টাকা লাগে। এ ধারণাও একেবারে ভুল। জিডি করতে কোনো প্রকার টাকা-পয়সা লাগে না। এমনকি কেউ যদি লিখতে না পারেন কিংবা নিয়মকানুন না জানেন তবে থানায় গিয়ে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তাকে বললে তিনিই জিডির আবেদন লিখে অন্যান্য প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবেন। এক্ষেত্রে আবেদনকারীকে শুধু স্বাক্ষর দিলেই চলবে।

ছবি