মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা প্রশাসনের পটভূমি

কিশোরগঞ্জ জেলার একটি উপজেলা হচ্ছে করিমগঞ্জ। নামটির প্রথম অংশ ‘করিম’ এবং দ্বিতীয় অংশ ‘গঞ্জ’ এ দুটির সংযোগে হয়েছে করিমগঞ্জ। অর্থ্যাৎ করিম কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত বাজার বা গঞ্জ। কেএইকরিম?  করিমগঞ্জ স্থানটি কোন করিমের অধীনে ছিল কি-না তা যাচাই ও ইতিহাস পর্যালোচনায় ঈশাখাঁ’র সময়ে (১৫৩৭-  ১৫৯৯) বাংলার বার ভূঁইয়ার মধ্যে করিমদাদ মূসাজাঁই নামে একজনের নাম জানা যায়। তবে তিনি অত্র এলাকায় বসতিস্থাপন করেছিলেন কি-না তা জানা যায়নি।করিমদাদ মূসাজাই ছাড়া এ এলাকায় সম্পৃক্ত আর যেদুজন করিমের নাম পাওয়া যায়; তারা হলেন বৌলাই সাহেব বাড়ীর প্রতিষ্ঠাতা মোগল প্রতিনিধি আলশায়খ আব্দুল করিম ও অন্যজনের নাম সি.এস.রেকর্ডে তালুক করিম খাঁ নামে উল্লেখআছে। তিনি আনুমানিক ১৬২৫ সালে এ অঞ্চলে আগমন করেন। অন্যজন ঈশাখাঁ’র ১০ম অধঃস্তন করিমদাদখাঁ।

জমিদারী আমলে করিমগঞ্জ বাজারটি বৌলাই জমিদার বাড়ীর অধীনে ছিল। ফলে এটি বৌলাই বাড়ীর পূর্ব পূরুষ মীরে বহর আল শায়খ আব্দুল করিম এর নাম থেকে করিমগঞ্জ নামকরণ হয়েছে বলে ধরে নেয়া যায়। ঈশাখাঁ’র বংশের করিমদাদখাঁ উনিশশতকের প্রথমদিকের লোক এবং করিমগঞ্জ তার জমিদারীর আওতাধীন ছিল না।

স্বাধীনচেতা জমিদারনেতাবীরঈশাখাঁরবিদ্রোহমোগমসম্রাটকেব্যতিব্যস্তকরেতুলেছিল।বিদ্রোহদমনেরজন্যমোগলনৌসেনাপতি, বৌলাইসাহেববাড়ীরপ্রতিষ্ঠাতামীরেবহরআলশায়খআব্দুলকরিমএঁরনামানুসারেইএঅঞ্চলকরিমগঞ্জনামেপরিচিতিলাভকরে।

১৯০৬খ্রিঃসরকারীনোটিশেরমাধ্যমেভৈরব, অষ্টগ্রাম, নাগপুর, মীর্জাপুর, ঘাটাইল, সরিষাবাড়ী, বারহাট্টা, মাদারগঞ্জ, খালিয়অজুরীওমুক্তাগাছা'কেপূর্নাঙ্গথানাকরাহয়।১৯০৯-১৯১০সালেপাকুন্দিয়া, হোসেনপুর, করিমগঞ্জওতাড়াইলথানাস্থাপনকরাহয়।তখনথেকেইকরিমগঞ্জনামটিব্যাপকতালাভকরে।